Aajbikel

শাহজাহান অনুগামীদের মারে হাসপাতালে ৩ অফিসার, সন্দেশখালির ঘটনায় ইডির বিরুদ্ধেই FIR!

 | 
ইডি সন্দেশখালি

কলকাতা:  রেশন দুর্নীতি মামলার তদন্তে শুক্রবার সকালে উত্তর চব্বিশ পরগণার সন্দেশখালিতে অভিযানে নামে ইডি৷ তৃণমূল নেতা শাহজাহান শেখের বাড়িতে হানা দিতেই বদলে যায় এলাকার পরিস্থিতি৷ রে রে করে তেড়ে আসে শাহজাহানের অনুগামীরা৷ তাদের ছোড়া ইট-পাটকেলের আঘাতে মাথা ফাটে এক অফিসারের৷ জখম হন আরও দুই ইডি আধিকারিক৷ গুরুতর চোট নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন তিন ইডি আধিকারিক। এই ঘটনায় এবার ইডির বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করল ন্যাজাট থানার পুলিশ। কিন্তু কীসের ভিত্তিতে ইডির বিরুদ্ধে মামলা রুজু করা হল? 

জানা যাচ্ছে, তৃণমূল নেতা শাহজাহান শেখের বাড়ির কেয়ারটেকারের অভিযোগের ভিত্তিতে এই মামলা রুজু করা হয়েছে৷ তাঁর অভিযোগ, শুক্রবার কোনও রকম ওয়ারেন্ট ছাড়াই শাহজাহানের বাড়ির তালা ভেঙে ভিতরে ঢোকেন ইডি আধিকারিকরা।  

শনিবার সকালে ন্যাজাট থানায় শেখ শাহজাহান ও তাঁর অনুগামীদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে ইডি-ও৷ রাজ্য পুলিশের ভারপ্রাপ্ত ডিজি রাজীব কুমার ও বসিরহাট পুলিশ জেলার এসপি জোবি থমাসের কাছে সরাসরি ইমেল পাঠিয়ে অভিযোগ জানানো হয়েছে৷ সেখানে ইডি-র দাবি, কোর্টের ওয়ারেন্ট নিয়েই সন্দেশখালির তৃণমূল নেতার বাড়িতে তল্লাশি অভিযানে গিয়েছিলেন তাঁরা৷  এই ঘটনায় অজ্ঞাতপরিচয়ের বিরুদ্ধে স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে আরও একটি মামলা রুজু করেছে ন্যাজাট থানার পুলিশ। সরকারি কর্মীদের কাজে বাধা, ভাঙচুর ও সংবাদ মাধ্যমের কর্মীদের ওপর হামলার অভিযোগে এই মামলাটি দায়ের হয়েছে৷ অর্থাৎ সব মিলিয়ে সন্দেশখালির ঘটনায় তিনটি মামলা দায়ের হয়েছে৷ তবে ঘটনার ২৪ ঘণ্টা পরও এখনও পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি।

এদিকে, শুক্রবার সন্দেশখালিতে হামলার দায় ইডির উপরেই চাপিয়েছে এ রাজ্যের শাসক শিবির। এ প্রসঙ্গে তৃণমূল মুখপাত্র তথা রাজ্য সাধারণ সম্পাদক কুণাল ঘোষের বক্তব্য, ‘‘রাজ্যের কাউকে না জানিয়ে ইডি আধিকারিকরা ওখানে তল্লাশি করতে গিয়েছিলেন। আক্রান্ত হয়েছেন। তখন আপনারা মেল করে সব জানাচ্ছেন। তাহলে কী করে প্রোটেকশন নেওয়া যাবে? আগে থেকে যদি আপনারা জানিয়ে দিতেন, তাহলে কিছুটা সামলানো যেত। তবে সবমিলিয়ে তদন্তকারীদের উপর হামলা একেবারেই কাম্য নয়।”

অভিযোগ, পাল্টা অভিযোগের মধ্যে বিবৃতি জারি করেছে ইডি৷ বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, বাংলায় নিযুক্ত ইডি আধিকাকিকরা সন্দেশখালির ঘটনা প্রসঙ্গে দু'টি রিপোর্ট তৈরি করেছেন। জোড়া রিপোর্ট পাঠানো হবে দিল্লিতে। এই দুটি রিপোর্টে গোটা ঘটনাটি তুলে ধরা হয়েছে বলেই সংবাদ সংস্থা সূত্রে খবর। কী কারণে অভিযান, কী ভাবে হামলা, সবটাই রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়েছে। এমনকী কারা এই হামলা চালিয়েছে, তাও ইডি-র রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়েছে৷ কোন পরিস্থিতিতে তদন্ত অসমাপ্ত রেখে ইডি আধিকারিকদের পিছু হঠতে হয়েছে, তাও বিস্তারিত ভাবে উল্লেখ করা হয়েছে ওই রিপোর্টে৷ 

সন্দেশখালির ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে নবান্ন। শনিবার দুপুরে সব জেলাশাসককে নিয়ে ভারচুয়াল বৈঠক ডেকেছেন মুখ্যসচিব বি পি গোপালিকা। 

 

Around The Web

Trending News

You May like