Aajbikel

প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত ‘মিগজাউম’, দক্ষিণবঙ্গের ১১ জেলায় বিরাট প্রভাব

 | 
cyclone

কলকাতা: চলতি সপ্তাহের শুরুতেই যে তাণ্ডব চালু হবে তার আভাস মিলেছিল। সেই মতোই এই মুহূর্তে দক্ষিণ অন্ধ্রপ্রদেশ এবং উত্তর তামিলনাড়ুর কাছে পশ্চিম-মধ্য এবং সংলগ্ন দক্ষিণ-পশ্চিম বঙ্গোপসাগরের ওপর রয়েছে 'মিগজাউম'। তার ফলে এখন থেকেই তুমুল ঝড়বৃষ্টি শুরু হয়েছে চেন্নাই জুড়ে।

ভাসছে উপকূলবর্তী অঞ্চল৷ রাস্তাঘাটে জল জমে গিয়েছে৷ ব্যহত স্বাভাবিক জনজীবন৷ তবে এর প্রভাব যে বাংলায় একদমই পড়বে না, এমনটা নয়। হাওয়া অফিসের পূর্বাভাস, মঙ্গলবার বঙ্গের একাধিক জেলায় বৃষ্টিপাত হতে পারে। সকাল থেকে আকাশ মেঘলা থাকার সম্ভাবনা। 

আলিপুর আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, আপাতত প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হয়েছে 'মিগজাউম'। মঙ্গলবার দুপুরে দক্ষিণ অন্ধ্রপ্রদেশের মছলিপত্তনম এবং নেল্লোরের মাঝখান দিয়ে স্থলভাগে আছড়ে পড়ার সম্ভাবনা আছে তার। ল্যান্ডফলের সময় হাওয়ার গতিবেগ থাকতে পারে ঘণ্টায় ৯০ থেকে ১১০ কিলোমিটার।

এর প্রভাবে বাংলার কলকাতা সহ একাধিক জেলা যেমন হাওড়া, হুগলি, বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, পূর্ব এবং পশ্চিম মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রামে হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি হতে পারে বলে জানানো হয়েছে। আগামী বৃহস্পতিবার পর্যন্ত এই বৃষ্টিপাত চলতে পারে। শুক্রবার নাগাদ আবহাওয়া একটু স্বাভাবিক হবে বলে আভাস। 

যদিও হাওয়া মহল জানিয়েছে, দুর্যোগের মাত্রা ভয়ঙ্কর রূপ নেবে না পশ্চিমবঙ্গে৷ বজ্রবিদ্যুৎ-সহ হালকা বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে জেলায় জেলায়৷ আর কোনও জায়গায় টানা বৃষ্টি হবে না, বিক্ষিপ্ত ভাবে বৃষ্টিপাত চলবে। এই ঘূর্ণিঝড়ের প্রকোপ কেটে যাওয়ার পর বঙ্গে শীতের ইনিংস সম্পূর্ণভাবে শুরু হবে বলে অনুমান করা হচ্ছে। 

Around The Web

Trending News

You May like