×

জোট নেই, তবুও কংগ্রেস-আব্বাসদের সমর্থন! নয়া ভাবনা বামেদের

 
বাম

কলকাতা: পরের মাসে কলকাতা পুরসভা নির্বাচন। তার প্রেক্ষিতে আজ সর্বপ্রথম রাজনৈতিক দল হিসেবে প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করেছে সিপিএম। সেই প্রার্থী তালিকায় রয়েছে চমক কারণ সব আসনে প্রার্থী দেয়নি বামফ্রন্ট। আজ সাংবাদিক বৈঠক করে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, ১৫-১৬ আসনে প্রার্থী দেবে না বামেরা কারণ ওই সব আসনে জোট না হলেও সমর্থন করা হবে কংগ্রেস এবং আব্বাস সিদ্দিকীর দলকে! মূলত তৃণমূল এবং বিজেপির বিরোধিতাকেই অগ্রাধিকার দিচ্ছে লাল বাহিনী।

চলতি বছর বিধানসভা নির্বাচনে একেবারে ধরাশায়ী হয়েছে কংগ্রেস, সিপিএম এবং আইএসএফ জোট। প্রথম দুই দল বিধানসভায় শূন্য হয়ে গিয়েছে এবং আইএসএফ মাত্র একটি আসন পেয়েছে। নির্বাচনের পরেই জোটের ইতি টেনে দেওয়া হয়েছে। স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল যে কংগ্রেস এবং সিপিএম আর একসঙ্গে লড়বে না। কিন্তু পুরসভার নির্বাচনে একসঙ্গে লড়লেও সিপিএম জানিয়ে দিল যে তারা কংগ্রেস এবং আইএসএফকে সমর্থন করবে। সেই কারণে তারা আসন ফাঁকাও রাখছে। এখন তাঁদের এই নীতি আদতে পুরসভা নির্বাচনে কতটা ফায়দা দেবে লাল ব্রিগেডকে তা তো সময়ই জানান দেবে। আজ অবশ্য প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করার সময় নির্বাচন যাতে সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করা হয় তার আবেদন জানিয়েছে বামফ্রন্ট।

এদিকে রাজ্যের শাসক শিবিরের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ করে তারা দাবি করেছে, বিরোধীদের কাজ করতে দেয়নি বর্তমান রাজ্যের শাসক দল। দুর্নীতি এবং গোষ্ঠী কোন্দলে জেরবার তারা। পাশাপাশি তারা এও স্পষ্ট করে দেয় যে, বিজেপি এবং তৃণমূলের বিরোধিতা করাই বামেদের অগ্রাধিকার এবং সেই কারণে বাম দলগুলোর মধ্যে ঐক্যের প্রয়োজন রয়েছে। এই সাথে কথা বলতে গিয়ে কলকাতার সমস্যাগুলির কথা তুলে ধরা হয় এবং দাবি করা হয় শহরে বেআইনি নির্মাণের সমস্যা রয়েছে। শাসক শিবির নিজেদের সুবিধার্থে এবং উপার্জনের বিষয়কে অগ্রাধিকার দিয়ে কাজ করছে এবং তাতে সাধারণ মানুষের সমস্যা বাড়ছে। পাশাপাশি দাবি করা হচ্ছে যে শাসকদলের মদতেই বেআইনি নির্মাণ চলছে।

From around the web

Education

Headlines