Aajbikel

এইমসে পিকে লিস্ট! বিজেপি নেতাদের তালিকায় নাম থাকলেই কল্যাণী এইমসে অ্যাপয়েন্টমেন্ট পাকা

 | 
এইমস

কলকাতা: রাজ্যে একের পর এক নিয়োগ দুর্নীতির মাঝে উঠে এল আরও এক দুর্নীতির অভিযোগ৷ এ রাজ্যের স্বাস্থ্য ব্যবস্থার খোলনোলচে বদলে ফেলতে নদীয়ার কল্যাণীতে তৈরি করা হয়েছে বাংলার প্রথম অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অব মেডিক্যাল সায়েন্সেস (এইমস)৷ এটি কেন্দ্রীয় প্রতিষ্ঠান৷  রাজ্য বিজেপি’র অভিযোগ, রাজ্য সরকার পরিচালিত স্বাস্থ্য পরিকাঠামোর বেহাল দশা৷ সেই প্রেক্ষিতে এইমসকে হল ‘গেম চেঞ্জার’৷ অথচ গেরুয়া দলের নেতা-বিধায়ক-সাংসদদের আভ্যন্তরীণ কোন্দলে দেশের অন্যতম সেরা এই স্বাস্থ্য প্রতিষ্ঠানের পরিষেবা থেকে বঞ্চিত হতে হচ্ছে সাধারণ রোগীদের।

এবার শোনা যাচ্ছে আরও এক গল্প৷  হাসপাতাল চত্বরে কান পাতলেই শোনা যাচ্ছে অদ্ভুত এক ‘লিস্ট’-এর কথা। বিজেপি সাংসদ-বিধায়ক কিংবা নেতাদের আত্মীয়দের নামেই নাকি চলছে এই তালিকা৷ সেখানে নাম থাকলেই সোজা ডাক্তারদের কাছে পৌঁছনো যাচ্ছে। আর তালিকায় নাম না থাকলে খালি হাতেই ফিরতে হচ্ছে রোগীদের৷ কেন্দ্রীয় সরকারি এই প্রতিষ্ঠানে এখন চর্চায় ‘পিকে’ লিস্ট! কে এই পিকে? তা নিয়ে বেশ রহস্য ঘনিয়েছে। ভোটকুশলী প্রশান্ত কিশোরের নাম ভাঁড়িয়ে কি হাসপাতালে রোগী পাঠাচ্ছেন বিজেপি নেতাদেরই একাংশ? জানা গিয়েছে, এইমসে লিস্ট পাঠাচ্ছেন বিধায়ক অম্বিকা রায়, অসীম সরকার, সুব্রত ঠাকুর, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী শান্তনু ঠাকুররা৷ কোন দিন, কোন বিভাগে, কোন ডাক্তার থাকবেন—তার পূর্ণ তালিকা ঝুলছে বিজেপির সাংসদ-বিধায়কদের অফিসে। আউটডোরে ডাক্তার দেখানোর আবেদন এলে তাঁরা নিজস্ব প্যাডে রোগীদের নামের তালিকা করে পাঠাচ্ছেন৷ ফলে সাধারণ মানুষের সেখানে ঢোকার কোনও সুযোগ নেই৷ 

Around The Web

Trending News

You May like