×

প্রশ্ন 'ফাঁস' করল কে? সুকান্তর বিস্ফোরক দাবি, নাম জড়াচ্ছে তৃণমূলের

 
sukanta

কলকাতা: বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার এদিন কার্যত দাবি করেন মাধ্যমিকের ইংরেজি প্রশ্ন ফাঁস হয়েছে। পরীক্ষা শুরুর ঘণ্টাখানেকের মধ্যেই তিনি নিজের টুইটারে ৩ পাতা প্রশ্নের ছবি দেন। তাঁর দাবি, সকাল থেকেই এ বারের মাধ্যমিক পরিক্ষার ইংরেজি প্রশ্নপত্র বলে এই প্রশ্ন ঘুরে বেরিয়েছিল, তিনি কিছুক্ষণের মধ্যেই তা পেয়েছেন। আর এই ঘটনার পেছনে তৃণমূলের এক নেতা আছেন বলেও দাবি করেছেন সুকান্ত। যা নিয়ে শোরগোল শুরু হয়েছে। পাল্টা দিয়েছেন রাজ্যের শাসক দলও। 

আরও পড়ুন- মাধ্যমিকে অঙ্কে ভয়? পরীক্ষার খাতায় কী ভাবে উত্তর লিখতে হবে? পুরো নম্বর পাওয়ার কৌশলই বা কী?

বিজেপি নেতা সুকান্ত মজুমদারের বক্তব্য, আজ দুপুর ১২টা ৪৮ মিনিটে হোয়াটসঅ্যাপে এই প্রশ্নপত্র এসে যায় তাঁর কাছে। ফলে এটি যে প্রশ্নপত্র ফাঁস, তা নিয়ে কোনও সন্দেহ নেই। কিন্তু এই ঘটনা কে ঘটালেন? এ নিয়েই বিস্ফোরক দাবি করে তিনি আরও জানান, মালদহে মূলত মাধ্যমিকের প্রশ্নপত্র ঘুরে বেরিয়েছে আর তা 'ফাঁস' করেছেন জেলার তৃণমূল শিক্ষা সেলের এক নেতা। যদিও কোনও নাম উল্লেখ করেননি তিনি। এই বিষয়ে সম্পূর্ণ অন্য কথাই বলছে তৃণমূল কংগ্রেস। দলের নেতা তথা মুখপাত্র কুণাল ঘোষ বলেন, বিজেপির তরফে সস্তার রাজনীতি করা হচ্ছে। রাজনৈতিক কারণে ছাত্রছাত্রীদের মানসিকতা নিয়ে ছেলেখেলার কোনও মানে হয় না বলে মন্তব্য তাঁর। এক্ষেত্রে কুণালের ব্যাখ্যা, পরীক্ষার্থীরা হলে ঢুকে গেলে তারপর সেটা আর প্রশ্ন ফাঁস হতে পারে না। তখন তো প্রশ্নপত্র খুলতেই হবে, তাহলে সেটা ফাঁস হল কী ভাবে?  

জানা গিয়েছে, পরীক্ষার পর কয়েকজন পড়ুয়া সেই প্রশ্নপত্র দেখে জানিয়েছেন, এটি এ বারের ১৬ পাতার ইংরেজি প্রশ্নপত্রেরই ৩টি পাতা। একাংশের মতে, পরীক্ষা চলাকালীন সুকান্ত মজুমদার ‘প্রশ্নপত্রের’ একাংশ সামনে এনে বিধিভঙ্গ করেছেন। বিষয়টি খতিয়ে দেখার আশ্বাস দিয়েছেন মধ্যশিক্ষা পর্ষদের সভাপতি রামানুজ গঙ্গোপাধ্যায়। 

From around the web

Education

Headlines