×

জঙ্গলের আইন চলতে পারে না! শিক্ষক বদলি নিয়ে কড়া পর্যবেক্ষণ হাইকোর্টের

 
High Court is displeased with state govt. রাজ্যকে ভর্তসনা হাইকোর্টের।

কলকাতা: শিক্ষক বদলির এক মামলায় শুক্রবার কড়া মন্তব্য করতে শোনা গেল কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি বিশ্বজিৎ বসুকে। তাঁর মন্তব্য, কোনও জঙ্গলের আইন চলতে পারে না। বদলির ক্ষেত্রে প্রশাসনের যে নির্দেশিকা রয়েছে, তা মানতে হবে। স্পষ্ট নির্দেশ তাঁর। আসলে মামলাকারীর অভিযোগ ছিল, তিনি বদলি চাইলেও সরকার তথা শিক্ষা দফতর ইচ্ছে করে তাঁকে বদলি করছে না। এই ইস্যুতেই কড়া মন্তব্য করলেন বিচারপতি।

আরও পড়ুন- নতুন বছরের আগেই সুখবর! ২০২০-২২ শিক্ষাবর্ষে D.El.Ed. পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত 

একজন শিক্ষক বদলি চেয়ে কলকাতা হাইকোর্টে মামলা করেছিলেন। পরে আদালতের পর্যবেক্ষণে উঠে আসে যে, ওই স্কুলে কোনও অঙ্কের শিক্ষক নেই! এই প্রেক্ষিতে রাজ্যের অ্যাডভোকেট জেনারেল (এজি) সৌমেন্দ্রনাথ মুখোপাধ্যায়কে উদ্দেশ্য করে বিচারপতি বসু বলেন, কোনও স্কুলে অঙ্কের শিক্ষক নেই, ভাবা যায়! পড়ুয়াদের কী শেখানো হচ্ছে তা নিয়ে চিন্তা। এবার হাল ফেরাতে হবে। এদিকে এজি জানিয়েছেন, বদলি নিয়ে সরকারের আইন বারবার প্রয়োগ করা হয়। কিন্তু অনেকেই নানা অজুহাতে আদালতে এসে বদলি নিয়ে যান। বিচারপতি বসু পাল্টা বলেছেন, কাউকে বদলি করা হলে সাত দিনের মধ্যে তা কার্যকর করতে হবে। না হলে সংশ্লিষ্ট শিক্ষকের বিরুদ্ধে  বিভাগীয় পদক্ষেপ করতে পারবে শিক্ষা দফতর।

একই সঙ্গে আদালতের নির্দেশ, প্রশাসনের নির্দেশিকা মেনে পড়ুয়াদের স্বার্থে যে কোনও শিক্ষককে রাজ্যের যে কোনও জায়গায় বদলি করতে পারে শিক্ষা দফতর। শূন্য ছাত্রের স্কুল থেকে ভর্তি ছাত্রের স্কুলে শিক্ষকদের যেতেই হবে। তারা শুধু স্কুলে যাবেন আর আসবেন, এটা চলতে পারে না। উল্লেখ্য, রাজ্য সরকার শিক্ষক বদলির জন্য ‘উৎসশ্রী’ পোর্টাল চালু করেছিল। আপাতত সেখানে আবেদন জানানোও বন্ধ রয়েছে।

From around the web

Education

Headlines