×

চারদিকে কোটি কোটি টাকা উদ্ধারের মধ্যেই ঋণের দায়ে আত্মঘাতী উদীয়মান ক্রিকেটার

 
ক্রিকেট খেলতে বাধা, মায়ের সঙ্গে বচসার পরেই আত্মঘাতী কসবার ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ুয়া

নিজস্ব প্রতিনিধি: গত কয়েক মাস ধরে কলকাতা তথা পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন জায়গা থেকে কোটি কোটি নগদ টাকা উদ্ধারের ঘটনা ঘটেছে। এছাড়া অভিযোগ উঠেছে লক্ষ লক্ষ টাকা প্রচারণা করার। আর বিভিন্ন সীমাহীন দুর্নীতির অভিযোগ বারবার খবরের শিরোনামে উঠে এসেছে।‌ এই আবহের মধ্যে অসম্ভব মন খারাপ করা একটি খবরে ভারাক্রান্ত হয়েছে গোটা রাজ্য। ঋণের দায়ে আত্মঘাতী  হয়েছেন মাত্র ১৮ বছরের উদীয়মান ক্রিকেটার হাওড়ার  বেলুড়ের রেল কলোনির বাসিন্দা রোহিত যাদব।

অ্যাসিড খেয়ে তিনি আত্মঘাতী হয়েছেন।  মানসিক অবসাদের কারণেই এমন ঘটনা বলে পরিবার সূত্রে খবর। ২০১৯-২০ সালে রাজ্যের জুনিয়র ক্রিকেট দলে নাম ছিল রোহিতের। কিন্তু এই পরিবার বহুদিন ধরেই আর্থিক অভাবে ভুগছিল। রোহিতের মা চড়া সুদে অনেক টাকা ধার নিয়েছিলেন। নিয়মিত সেই টাকা ফেরত চাইছিল পাওনাদাররা। একটা চায়ের দোকান চালিয়ে সামান্য কিছু আয় করতেন রোহিতের মা। কিন্তু রোজ রোজ পাওনাদাররা তাগাদা দিতে দোকানে আসায় সেই দোকান বন্ধ করে দিতে বাধ্য হন তিনি। এমনকী ওই বাড়ি থেকে চলেও যান তিনি। তবে রোহিত বাড়িতেই থাকতেন। একটা সময় পাওনাদাররা রোহিতের কাছ থেকে টাকা চাইতে থাকে। তখন রোহিত তাদের বলে ক্রিকেটার হয়ে ভাল চাকরি পাওয়ার পর সব ঋণ তিনি শোধ করে দেবেন। কিন্তু পাওনাদাররা নিয়মিত টাকার জন্য হুমকি দিত বলে অভিযোগ। এরপরই রোহিত পাওনাদারদের চাপ সামলাতে না পেরে আত্মহত্যা করেছেন।

স্বাভাবিকভাবেই এই মর্মান্তিক ঘটনা আমাদের সমাজ ব্যবস্থা নিয়ে বড় প্রশ্ন চিহ্ন তুলে দিল। চারদিকে যখন লক্ষ লক্ষ, কোটি কোটি টাকা উদ্ধার হচ্ছে, দুর্নীতির অভিযোগে আকাশ বাতাস ভরে যাচ্ছে, তখন অকালে ঝরে গেল এক উদীয়মান ক্রিকেটারের তাজা প্রাণ। দিনের পর দিন পাওনাদাররা তাগাদা করলেও তাদের বিরুদ্ধে এলাকার কাউকে রুখে দাঁড়াতে দেখা যায়নি বলে অভিযোগ। রাজ্যে যখন এত সামাজিক প্রকল্প চালু রয়েছে, সেখানে অভাব অনটন কতটা থাকলে এই পরিস্থিতিতে পড়তে হয় মানুষকে, তা বোঝা গেল রোহিত যাদবের পরিবারের করুণ ছবি থেকেই। তবে কী প্রদীপের নিচেই অন্ধকার? তবে কী বিভিন্ন প্রকল্পের সুবিধা সবার কাছে পৌঁছচ্ছে না, এই প্রশ্ন তুলছেন কেউ কেউ। আসলে কতটা মানসিক যন্ত্রণা আর টানাপোড়েনের মধ্যে দিন কাটাচ্ছিলেন রোহিত যাদব, তা কেউ বোঝার চেষ্টা করেননি। রোহিত যাদব উদীয়মান ক্রিকেটার। কে বলতে পারে তাঁর হাত ধরে আগামী দিনে ভারত একজন নতুন ম্যাচ উইনারকে পেত না? রোহিতের কথা রাজ্যবাসী শীঘ্রই ভুলে যাবে। কিন্তু তাঁর অকাল মৃত্যুতে যে প্রশ্নগুলি উঠে গেল তার সমাধান কি ততটা দ্রুত হবে? এর উত্তর খুঁজবে কে?
 

From around the web

Education

Headlines