Aajbikel

ফের কলকাতায় উদ্ধার ‘যকের ধন’, পাচারের চেষ্টা? পুলিশের হাতে ধৃত দুই

 | 
টাকা

 কলকাতা: ফের কলকাতায় উদ্ধার ‘যকের ধন’। ৫০ লক্ষ টাকা পাচার করার অভিযোগে দুই যুবককে গ্রেফতার করল পুলিশ৷ শহরে একের পর টাকা উদ্ধারের ঘটনায় রীতিমতো শোরগোল পড়েছে৷ কোথা থেকে, কী ভাবে এই বিপুল টাকা আসছে, তা নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে।

আরও পড়ুন- ফের এক ধাক্কায় নামল রাজ্যের কোভিড গ্রাফ, তথ্য বিস্তারিত


গোপনসূত্রে খবর পেয়ে বুধবার রাতে যৌথ অভিযান চালিয়ে বিপুল টাকা সমেত ওই দুই যুবককে উদ্ধার করে বউবাজার থানার পুলিশ আধিকারিক ও লালবাজারের গোয়েন্দারা৷  ধৃতদের নাম অমিত কুমার দে ও রাজেশ মল্লিক। রাজেশের বাড়ি পূর্ব কলকাতা তপসিয়ার পিকনিক গার্ডেনে। অমিতের বাড়ি দক্ষিণ ২৪ পরগনা সোনারপুরে৷ বুধবার রাতে বউবাজার এলাকার গণেশচন্দ্র অ্যাভিনিউ দিয়ে হেঁটে যাচ্ছিল তারা৷ সেই সময়ই দুই অভিযুক্তকে আটক করে পুলিশ৷ তাদের ব্যাকপ্যাকে তল্লাশি চালিয়ে ৫০ লক্ষ টাকা উদ্ধার করেন পুলিশ আধিকারিকরা।


কোথা থেকে এত টাকা এল, কোথায়ই বা টাকা নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল? সে সম্পর্কে সদুত্তর দিতে পারেনি দুই যুবক। এর পরই গ্রেফতার করা হয় অমিত এবং রাজেশকে। গোয়েন্দাদের অনুমান, এই টাকা হাওলার। বউবাজার বা বড়বাজারের হাওলা গদি থেকেই ৫০ লক্ষ টাকা পাচার করার মতলব ছিল তাদের। গত এক মাসে কলকাতা থেকে কারি কারি টাকা উদ্ধার হয়েছে। পঞ্চায়েত ভোটের আগে টাকা পাচারের বিষয়টিকে যথেষ্ট গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে বলে  লালবাজার সূত্রে খবর। টাকার উৎস জানতে দু’জনকেই জেরা করা হচ্ছে৷ 

হিসাব বহির্ভূত বিপুল পরিমাণ পরিমাণ টাকা বড়বাজার ও পোস্তা অঞ্চলে পাচার হচ্ছে বলে পুলিশের কাছে খবর ছিল৷  লালবাজারে গোয়েন্দা বিভাগের গুন্ডা দমন শাখার আধিকারিকরা বিষয়টি জানার পরই বিভিন্ন জায়গায় হানা দেয় তারা৷ 

Around The Web

Trending News

You May like