Lieutenant Shivangi

নয়াদিল্লি: বোমারু বিমানের ককপিটে বসার ছাড়পত্র আগেই পেয়েছিলেন মহিলারা৷ এবার আরও এক ইতিহাসের সাক্ষী হল দেশ৷ নৌবাহিনীর পাইলটের দায়িত্বে প্রথম নিজের কাঁধে তুলে নিলেন আরও এক কন্যার৷ আজ পাইলটের আসলে বসলেন নৌবাহিনীর প্রথম মহিলা পাইলট শিবাঙ্গী৷ নৌসেনা দিবসে নিজের যোগ্যতায় শিবাঙ্গী লিখলেন ইতিহাস৷

ভারতীয় নৌবাহিনীতে মহিলারা এতদিন ট্রাফিক কন্ট্রোলের দায়িত্ব সামলাতে৷ যাদের প্রধান কাজ ছিল পর্যবেক্ষণ৷ এই প্রথমবার কোনও মহিলা পাইলটের দায়িত্ব নিলেন শিবাঙ্গী৷ নৌবাহিনীতে প্রথম মহিলারা পাইলটে পদে বসে শিবাঙ্গী জানিয়েছেন, আমি এই দিনটির জন্য দীর্ঘ দিন ধরে অপেক্ষায় ছিলাম৷ অবশেষে তা অর্জন করতে পেরে দুর্দান্ত অনুভূতি হচ্ছে আমার৷ আমি আমার তৃতীয় পর্যায়ের প্রশিক্ষণের জন্য প্রত্যাশায় রয়েছি৷

শিবাঙ্গী বিহার মুজাফ্ফরপুরে পড়াশোনা করেছেন৷ ডিএভি পাবলিক স্কুলে৷ ভারতীয় নৌবাহিনী একাডেমি থেকে ২৭ জন এনওসি প্রশিক্ষণ নিয়ে নৌসেনায় এসএসসি পাইলট হিসেবে তিনি যোগ দিতে চলেছেন৷ সার্দান নেভালে তাঁর প্রশিক্ষণ চলে৷ দীর্ঘদিনের প্রথা ভেঙে মহিলাদের নৌসেনায় দায়িত্ব দেওয়ার কথা ঘোষণা করে কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষামন্ত্রক৷ সেই সুযোগ হাতছাড়া করতে চাননি লেফটেন্যান্ট শিবাঙ্গী৷ যখন লক্ষণরেখা পার করা একে বারেই সহজ ছিল না৷

বছর কয়েক আগেই যুদ্ধবিমান চালানোর সুযোগ পেয়েছিলেন এয়ারফোর্সের মহিলা অফিসাররা৷ প্রশংসার বন্যা বইয়ে ছিল সারাদেশে ২০১৫ সালে সাধারণতন্ত্র দিবসের প্যারেডে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন এক মহিলা অফিসার নজির তৈরি করেছিলেন৷ ২০১৬ সালে ভারতীয় যুদ্ধ বিমানের ককপিটে বসার ছাড়পত্র পেয়েছিলেন অভানি চাতুর্ভেদি ও ভাবনা৷ এবার নৌসেনার অন্দরেও রাজত্ব করতে চলেছেন মহিলারা৷ সেনা সূত্রে খবর, মহিলাদের জন্য নিয়মের কোনও নিয়ম শিথিল করা হয়নি৷ প্রতিটি মাপকাঠিতে নিজের যোগ্যতার পরিচয় দিয়েছেন শিবাঙ্গী৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here