Staff pattern

কলকাতা: জোড়া বিজ্ঞপ্তি জারি হলেও স্কুলশিক্ষকদের স্টাফ প্যাটার্ন সংক্রান্ত ধোঁয়াশা কাটানো যায়নি৷ এই নিয়ে তীব্র ক্ষোভ তৈরি হয়েছিল শিক্ষক মহলে৷ শিক্ষক মহলে তৈরি হওয়া সেই ক্ষোভে জল ঢেলে বড়সড় স্বস্তি দিয়েছে রাজ্য শিক্ষা দপ্তর৷

শিক্ষা দপ্তরের তরফে সরাসরি বিজ্ঞপ্তি জারি করা না হলেও স্টাফ প্যাটার্নের নির্দেশ আপাতত ‘স্থগিত’ রাখার নির্দেশ ডিআইদের ইমেল মারফত পাঠানো হয়েছে৷ যদিও, আর আগে স্টাফ প্যাটার্নের নির্দেশ আপাতত ‘স্থগিত’ রাখার কথা সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘোষণা করেছেন পশ্চিমবঙ্গ তৃণমূল প্রাথমিক শিক্ষক সংগঠনের রাজ্য সভাপতি অশোক রুদ্র৷

আজ বিকেল ডটকমকে বৃহস্পতিবার তিনি বলেন,‘‘ফেসবুকে আমি যতটা বলেছি, ওইটুকুই আমার বক্তব্য৷ এর বাইরে আমি আর কিছু বলবো না৷ যে স্টাফ প্যাটার্ন ছিল, সেটা আপাতত স্থগিত৷ বিভিন্ন মহল থেকে বিভিন্ন সমস্যার কথা তুলে ধরা হয়েছিল৷ শিক্ষামন্ত্রীর কাছে আমি শিক্ষকদের সমস্যা তুলে ধরেছিলাম৷ তার পরিপ্রেক্ষিতে আপাতত এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে৷’’

অন্যদিকে, মাধ্যমিক শিক্ষকও শিক্ষাকর্মী সমিতির সাধারণ সম্পাদক বিশ্বজিৎ মিত্র জানিয়েছেন, ‘‘পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের শিক্ষা দপ্তর নোটিফিকেশন করার পরের দিন থেকেই আমাদের সমিতি মাধ্যমিক শিক্ষকও শিক্ষাকর্মী সমিতির পক্ষ থেকে তার প্রতিবাদে আন্দোলন গড়ে তোলা হয়৷ এই আন্দোলনের পরিপ্রেক্ষিতে গত ২১ নভেম্বর শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে আমাদের বৈঠক হয়৷ বৈঠকের পরেই শিক্ষামন্ত্রী সমস্ত সমস্যাগুলি নোট করে নেন৷ শিক্ষা দপ্তর জেলা ডিআইদের কাছে বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানিয়ে, পরবর্তী নির্দেশ না পাওয়া পর্যন্ত স্টাফ প্যাটার্নের কাজ স্থগিত রাখা হচ্ছে৷ আমরা সমিতির পক্ষ থেকে সরকারি এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানাচ্ছি৷ পশ্চিম বাংলার সমস্ত শিক্ষক শিক্ষা কর্মীদের ধন্যবাদ জানাচ্ছি৷ স্টাফ প্যাটার্নের প্রতিবাদে আন্দোলন গড়ে তোলার জন্য৷’’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here