তিরুবনন্তপুরম: জল,খাদ্য ও শিক্ষার পাশাপাশি বাম শাসিত কেরলে নাগরিকের মৌলিক অধিকারের তালিকার অন্তর্ভুক্ত হয়ছিল ইন্টারনেট পরিষেবা৷ অবশেষে বুধবার রাজ্য মন্ত্রীসভায় এই প্রকল্পটি অনুমোদন পেল৷

কেরলের অর্থমন্ত্রী থমাস আইজ্যাক বৃহস্পতিবার ট্যুইট করে এই খবর জানিয়েছেন৷ রাজ্যের অর্থমন্ত্রী ট্যুইটে আরও জানিয়েছেন কেরালা ফাইবার অপটিক নেটওয়ার্কে র এই প্রকল্পে ১৫৪৮ কোটি টাকা বরাদ্দ হয়েছে৷ ২০২০ সালের ডিসেম্বরে র মধ্য প্রকল্পের কাজ শেষ হবে৷ নাগরিকদের মৌলিক অধিকার প্রসঙ্গে কেরলের উচ্চ আদালত ইন্টারনেট পরিষেবার কথা উল্লেখ করেছিল৷

এবছরই এই প্রকল্প বাস্তবায়নের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন কেরলের বাম সরকারের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন৷ ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পরিষেবা পৌঁছে দেওয়ার পর এবার সরকারের লক্ষ্য ঘরে ঘরে ইন্টারনেট পরিষেবা৷ বাম সরকারের প্রথম পূর্নাঙ্গ বাজেটে কেরলের ২০ লক্ষ নাগরিকের কাছে ভর্তুকি হারে অথবা সম্পূর্ণ বিনামূল্যে এই পরিষেবা পৌঁছে দিতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হয় সরকার৷

প্রসঙ্গত,এই প্রকল্প বাস্তবায়িত হলে কেরল হবে দেশের প্রথম রাজ্য যেখানে বিনামূল্যে ইন্টারনেট পরিষেবা পাবে রাজ্যের প্রতিটি নাগরিক৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here