smartphones

কলকাতা: যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে প্রযুক্তিতে এসেছে বদল৷ প্রযুক্তি হাত ধরে গোটা বিশ্ব এখন হাতের মুঠোয়৷ স্মার্টফোনের দৌলতে ভার্চুয়াল দুনিয়ায় অবাধ বিচরণ চলছেই৷ কিন্তু এই স্মার্টফোন ব্যবহার নতুন প্রজন্মের মোনে ব্যাপক পরিবর্তন ঘটাচ্ছে বলে দাবি করছেন মনোবিদদের একাংশ৷

উৎসবের দিন হোক কিংবা সাধারণ আর পাঁচটি দিন, প্রতি মুহূর্তে সোশ্যাল মিডিয়া ও স্মার্টফোনের হাত ধরে চলছে শুভেচ্ছা বিনিময়৷ বাস্তব দুনিয়ার বেড়াজাল কাটিয়ে ভার্চুয়াল দুনিয়ায় অত্যাধিক যোগাযোগে বাস্তব সম্পর্কে প্রভাব ফেলবে বলে মনে করছেন মনোবিদদের একাংশ৷ তাঁদের দাবি, অনবরত স্মার্টফোন ব্যবহারের ফলে নবপ্রজন্মের মস্তিষ্কে ওভারলোড ইনফর্মেশন অভেরলোড হয়ে যাচ্ছে৷

কিন্তু কী এই পারসেপশন ওভারলোড? জানা গিয়েছে, অতিরিক্ত মোবাইল ফোন ব্যবহারের কারণে স্বাভাবিক যে সমস্ত সংবেদনশীল প্রতিক্রিয়া, যেমন শ্রবণ ক্ষমতা কিংবা দৃষ্টিশক্তি ইত্যাদি কারণে সরাসরি মানবদেহে প্রভাব ফেলে৷ সেই কারণে দ্রুত পরিকল্পনা ও কল্পনাশক্তির কমছে মোবাইল ব্যবহারকারীদের মধ্যে ভার্চুয়াল দুনিয়া ও বাস্তব সম্পর্কের মধ্যে তফাৎ বাড়িয়ে দিচ্ছে৷ সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচুর মানুষের সঙ্গে আলাপের সুযোগ থাকে৷ তাই সময় বাঁচাতে একটা মেসেজ সকলকে পোস্ট করা হয়৷

কে বা না চাই নিজেকে সুন্দর দেখাতে৷ সব থেকে সুন্দর ছবিটা ফেসবুকে পোস্ট করেন অনেকেই৷ এই প্রান্তে বসে যিনি সেই ছবি দিচ্ছেন, তার পরিকল্পনায় পোস্টটি করা ছবিতে প্রতিবিম্ব থেকে যাচ্ছে৷ অথচ বলার অপেক্ষা রাখে না বাস্তব চেহারা সঙ্গে পোস্টের ছবির পার্থক্য রয়েছে৷ ভার্চুয়াল সম্পর্কের জন্য বাস্তব সম্পর্কগুলি প্রত্যাখ্যান করছে নবপ্রজন্ম৷ এই সম্পর্কগুলি সরাসরি প্রভাব ফেলছে বলেও মনে করছেন মনোবিদ্যার একাংশ৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here