নয়াদিল্লি: দীর্ঘ বেতন বঞ্চনায় জেরবার বাংলার সরকারি কর্মচারী মহল৷ এই নিয়ে কম বিক্ষোভ হয়নি৷ সরকারি কর্মচারীদের অসন্তোষ সরাসরি প্রভাব ফেলেছে ভোটবাক্সেও৷ বাংলার সরকারি কর্মচারীদের ভোটের পরিসংখ্যান বলছে, সিংহ ভাগ আসনে এগিয়ে বিজেপি৷ এবার, রাজ্য সরকারি কর্মচারী মহলের ক্ষোভ আরও এক দফায় বাড়িয়ে দিল পরশি রাজ্যের বেতন বৃদ্ধির সুখবর৷

সর্বভারতীয় সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত খবরে জানা গিয়েছে, আগামী কয়েক দিনের মধ্যেই হিমাচল প্রদেশ রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের মহার্ঘভাতা বাড়তে চলেছে৷ অক্টোবর মাসের মধ্যেই তাঁরা বর্ধিত হারে বেতন পেতে পারে বলে খবর৷ কর্মীদের ন্যূনতম বেতন ১৮ হাজার টাকা জমা করেছে৷ একই সঙ্গে আরও এক দফায় ৪ শতাংশ মহার্ঘ ভাতাও দেওয়া হতেপারে কর্মীদের৷ জানুয়ারি থেকে জুলাই পর্যন্ত এই মহার্ঘ ভাতা সুবিধা পাবেন হিমাচল প্রদেশের কর্মীরা৷ নয়া এই ব্যবস্থা কার্যকর হলে উপকৃত হবেন ওই রাজ্যের আড়াই লক্ষ সরকারি কর্মচারী৷

জানা গিয়েছে, আগস্টের এরিয়ার সেপ্টেম্বরের বেতনের সঙ্গে মিলবে৷ একই সঙ্গে পেনশনভোগীরাও উপকৃত হবেন৷ সপ্তম বেতন কমিশনের সুপারিশ অনুযায়ী তাঁদেরও বেশ খানিকটা পেনশনের পরিমাণ বাড়ছে৷ মূলত পাঞ্জাবের পে কমিশনকে অনুসরণ করে হিমাচল প্রদেশ সরকার এই ব্যবস্থা কার্যকর করতে চলেছে বলে খবর৷ অন্যদিকে, কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীরা চলতি বছরের জুলাই থেকে বর্ধিত মহার্ঘভাতার অপেক্ষায় মোদি সরকারের দিকে চেয়ে আছেন৷ মনে করা হচ্ছে, খুব শীঘ্রই কেন্দ্রীয় কর্মচারীরা কেন্দ্র সরকারের সুখবর পেতে পারেন৷ তবে কেন্দ্রের মহার্ঘ ভাতা বৃদ্ধির ঘোষণা হলে রাজ্য কর্মীদের সঙ্গে কেন্দ্রীয় কর্মচারীদের মহার্ঘ ভাতার ফারাক বেশ খানিকটা বেড়ে যাবে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here