Belly Dance

শিলিগুড়ি: বাবার মুদির দোকান৷ অভাবের সংসার৷ তারপরেও নাচের প্রতি তীব্র আকর্ষণ ছিল দীপেশে বর্মার৷ শিলিগুড়ি মাটিগাড়া বাসিন্দা দীপেশের ছোট থেকেই নাচ করার উদম ইচ্ছা৷ তীব্র আপত্তি জানিয়েছিলেন বাবা-মা৷ কিন্তু, অদম্য ইচ্ছা আর কঠোর পরিশ্রমের পর অবশেষে এল সাফল্য৷

ছেলের নাম নিয়ে প্রথম দিকে বকাঝকাও করেছিলেন তাঁর বাবা-মা৷ বলেছিলেন, লেখাপড়া করে সংসারের হাল ধরতে৷ কিন্তু ছেলের অদম্য জেদের কাছে হার মানল পরিবার৷ অধ্যাবসায় ও পরিশ্রমের জোরে আজ শিলিগুড়ি মাটিগাড়া দীপেশ নাচ শেখাতে পারি দিচ্ছেন প্যারিসে৷ প্যারিসের একটি ডান্স স্কুলের তরফে স্কলারশিপ পেয়েছেন তিনি৷ শুরু হচ্ছে বিদেশযাত্রার প্রস্তুতি৷

দীপেশ জানিয়েছেন, অভাবের পরিবার৷ তাঁর নাচ করার ঘোরতর আপত্তি ছিল বড়দের৷ লুকিয়ে নাচ অনুশীলন শুরু করেন দীপেশ৷ তাঁর চেষ্টা দেখে অবশেষে পরিবারের তরফ ছাড়পত্র মেলে৷ বেলি ডান্স আগ্রহী, নাচ শিখতে যান দিল্লিতে৷ সেখান থেকে মুম্বাই একটি বেসরকারি সংস্থার তরফে স্কলার্শিপ পান৷ সেখানেই বেলিডান্সের অনুশীলন করেন তিনি৷ বিদেশে ডান্স একাডেমিগুলিতেও স্কলারশিপের জন্য আবেদন জানান৷ অবশেষে প্যারিসের ডান্স স্কুল থেকে তাকে ডাকা হয়েছে৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here