ওয়াশিংটন: ভারত-পাক সম্পর্ক নিয়ে ফের ডিগবাজি খেলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প৷ মোদি-ইমরানের সঙ্গে ফোনে কথার বলার পর এবার ফের ভারত-পাক সম্পর্কে নাক গলানোর ইচ্ছা প্রকাশ করলেন ট্রাম্প৷
বুধবার ভারত-পাক সম্পর্কে মধ্যস্থতার বার্তা দিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্টের দাবি, ভারত-পাক সম্পর্ক জটিল পরিস্থিতি তৈরি করেছে৷ মোদি-ইমরান চাইলে মার্কিন প্রশাসন সমঝোতার চেষ্টা করতে পেরে৷ ইমরানের সঙ্গে কথা বলার ট্রাম্পের বার্তা, গত ১০০ বছর ধরে চলছে এই সমস্যা৷ অবিলম্বে এই সমস্যা মেটাতে হবে বলেও জানান ডোনাল্ড ট্রাম্প৷

এর আগে মোদির সঙ্গে কথা বলার পর মঙ্গলবার ইমরান খানকে ফোন করেন ট্রাম্প৷ সুর নরম করে আলোচনায় বসার বার্তা মার্কিন প্রেসিডেন্টের৷ নেতাদের উস্কানিতে কাশ্মীরে অশান্তি হচ্ছে, মোদির এই দাবিতে মান্যতা দিয়ে ইমরানকে ফোন করেন ডোনাল্ড ট্রাম্প৷ সেখানেই পাকিস্তানকে সুন্দর করে আলোচনার বার্তা পাঠান মার্কিন প্রশাসন৷ সংযত থেকে আলোচনায় বসারও বার্তা পাঠান মার্কিন কর্তা৷ আলোচনার পাশাপাশি জঙ্গি দমন নিয়েও ইমরানকে চূড়ান্ত বার্তা দেন ট্রাম্প৷

অন্যদিকে, সোমবার রাতে প্রায় আধঘণ্টা মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি৷ সেখানে কাশ্মীর অশান্তি নিয়ে পাকিস্তানের উস্কানি নিয়ে অভিযোগ করেন মোদি৷ কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা তুলে নেওয়ার পর এই প্রথম দুই দেশের প্রধান প্রথম ফোন ঘিরে রাজনৈতিক মহলে রীতিমতো উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে৷ দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক থেকে বাণিজ্যিক বিষয় নিয়েও মোদি-ট্রাম্পের কথা হয়৷ সেখানে পাকিস্তানের ভূমিকা নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন মোদি৷

মোদির ফোন পাওয়ার পরই ইমরানকে ট্রাম্পের ফোন, ভারতের কূটনৈতিক জয় বলেই মনে করছেন অনেকেই৷ যদিও এর আগে কাশ্মীর সমস্যা ভারতের দ্বিপাক্ষিক বিষয়, মার্কিন প্রশাসন হস্তক্ষেপ করবে না বলে আগেই সাফ জানিয়ে দিয়েছিল মার্কিন প্রশাসন৷ কিন্তু, এবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট মন্তব্য ঘিরে তৈরি হয়েছে নয়া বিতর্ক৷ যদিও, ১৯৯২ সালের সিমলা চুক্তি অনুযায়ী ভারত-পাক দ্বিপাক্ষিক বিষয়ে কোনও তৃতীয় পক্ষ হস্তক্ষেপ করতে পারবে না বলে সাফ জানিয়ে দেওয়া আছে৷ ফলে, মার্কিন প্রেসিডেন্টের এই দাবি ঘিরে ভারতের খুব একটা সমস্যা না হলেও রয়েছে যথেষ্ট বিড়ম্বনা৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here