sabyasachi-DILIP

কলাকাত: জল্পনা উস্কে দিল্লি উড়ে গেলেন সদস্য পদত্যাগী বিধাননগরের মেয়র সব্যসাচী দত্ত৷ বিমান বন্দরে দাঁড়িয়ে প্রক্তন মেয়রের দাবি, বাণিজ্যিক কারণ তিনি দিল্লি সফরে যাচ্ছেন৷ কিন্তু, এই সফর ঘিরে তৈরি হওয়া জল্পনা আরও বাড়িয়ে দিয়েছেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ৷

শুক্রবার বিমানে ওঠার আগে সব্যসাচী দত্ত সাফ জানিয়ে দেন, ব্যবসার কারণ তিনি দিল্লি যাচ্ছেন৷ সেই কারণে যদি কোনও বিজেপির নেতার সঙ্গে কথা বলতে হয় তিনি তা করবেন৷ এর সঙ্গে রাজনীতির কোনও যোগ নেই৷ তবে,  সব্যসাচী দত্ত এই দিল্লি সফর ঘিরেও মুখ খুলেছেন দিলীপ ঘোষ৷ সব্যসাচী দত্ত কি বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন? উত্তরে দিলীপ ঘোষ জানান, কলকাতার মেয়রের পর যদি বিধাননগরের মেয়র যদি বিজেপিতে আসেন, তাঁর জন্য দরজা খোলা৷ আমরা সকলকেই বিজেপিতে আমন্ত্র জানাচ্ছি৷ সব্যসাচীকেও স্বাগত৷

খোদ নরেন্দ্র মোদিকে প্রশংসা করে দিল্লি সফরের ঘোষণা করেন সব্যসাচী৷ তবে তাঁর দিল্লি যাওয়া কোনও রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে নয় বলেও আগেই জানিয়েছিলেন বিধাননগরের প্রাক্তন মেয়র৷ ব্যাক্তিগত কারণে রাজধানীর মাটিতে পা রাখছেন বলে বৃহস্পতিবার জানান তিনি৷ তবে দিল্লি যাওয়ার আগেই কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে তৃণমূলের দলীয় নিতীকে কটাক্ষ করলেন সভ্যসাচী দত্ত৷

তিনি জানান, আজ (স্বাধীনতা দিবস) ভারতবাসীর গর্বের দিন৷ কারণ স্বাধীনতার ৭২ বছর পরে কাশ্মীরে ভারতের পতাকা উড়ছে৷ যা দেখে আদার গর্ব হচ্ছে৷ কাশ্মীর ইস্যুতে মোদি সরকারের প্রশংসার করেন তিনি৷ রাজারহাটের বিধায়ক বলেন, শোভন চট্টোপাধ্যায় তৃণমূলের পুরোনো নেতা। দক্ষিণ ২৪ পরগনার অভিজ্ঞ রাজনৈতিক নেতা৷ ওঁর হাতের তালুর মত গোটা জেলাটাকে তিনি চেনেন৷ তৃণমূলে শোভন চট্টোপাধ্যায়ের জায়গা রাতারাতি পূরণ হওয়া সম্ভব নয় বলেও মনে করেন তিনি৷ তবে সভ্যসাচী দত্তের দিল্লি যাওয়াকে কেন্দ্র করে রাজনৈতিক মহলে শুরু হয়েছে গুঞ্জন৷ তাঁর ঘনিষ্ঠরা জানিয়েছেন, দিল্লিতে গিয়ে বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে কথা বলবেন তিনি৷ কথা চূড়ান্ত হওয়ার পর বিজেপিতে যাওয়ার দিন ঠিক করবেন সভ্যসাচী দত্ত৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here