tollygunge-ps1

কলকাতা: গ্রেপ্তারির প্রবাদে খোদ থানার মধ্যে ঢুকে তাণ্ডব ধৃতের পরিবারের৷ খাস কলকাতার অভিজাত টালিগঞ্জ থানায় এই ঘটনায় রাজ্যজুড়ে ছড়িয়ে বিতর্ক৷ থানায় ঢুকে তাণ্ডবের ঘটনায় সংবাদমাধ্যমে বিস্ফোরক মন্তব্য পার্থ চট্টোপাধ্যায়৷

এবিপি আনন্দকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে পুলিশ নিগ্রহ বিতর্কে পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, ‘‘ভোট আর প্রশাসন এক নয়৷ ভোট রাজনীতিকে সামনে রেখে এই ধরনের ঘটনা করা যায় না৷ যা দেখলাম, তা বাঞ্ছিত নয়৷ এমন ঘটনা ঘটতে থাকলে কেউ আর হয়তো প্রশাসনকে মানবে না৷ আইন নিজেদের হাতে তুলে নিলে তার শাস্তি আছে৷ প্রশাসন দুর্ব্যবহার করলে তারও তদন্ত হওয়া উচিত৷’’

টালিগঞ্জ থানায় হামলার জন্য সরাসরি রাজ্যের স্বরাস্ট্রমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে দায়ী করেন মুকুল রায়। তিনি বলেন, অবিলম্বে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পদ থেকে পদত্যাগ করুন৷ নাহলে বাংলার আইনশৃঙ্লা ঠিক হবে না বলেও মন্তব্য করেন মুকুল রায়৷

গ্রেপ্তারির প্রবাদে খোদ থানার মধ্যে ঢুকে তাণ্ডবের অভিযোগ ওঠে খোদ ধৃতের পরিবারের বিরুদ্ধে৷ খাস কলকাতার অভিজাত টালিগঞ্জ থানায় এই ঘটনায় রাজ্যজুড়ে ছড়িয়ে বিতর্ক৷ অভিযোগ, গ্রেপ্তারির প্রতিবাদে খোদ থানার ঢুকে পুলিশকে ধাক্কা, মারধর, তাণ্ডব ধৃত বাইক চালকের পরিবার৷ পাল্টা ধৃত যুবক ও তার পরিবারের সদস্যদের মারধর পুলিশের৷ মারধরের ঘটনার ৩০ ঘণ্টা পর দু’জনকে গ্রেপ্তার করে বিতর্ক জল ঢালার চেষ্টা করে পুলিশ৷

জানা গিয়েছে, রবিবার রাতে সাদার্ন অ্যাভিনিউয়ে এক যুবককে মদ্যপ অবস্থায় বাইক চালাতে দেখে আটক করে পুলিশ৷ এর পরই ওই যুবক পুলিশকে গালিগালাজ করে বলে অভিযোগ৷ পুলিশকে করা হয় হেনস্থা৷ পরে করা হয় গ্রেপ্তার৷ নিয়ে যাওয়া হয় টালিগঞ্জ থানায়৷ যুবকের গ্রেপ্তারির খবর পেয়ে ধৃতের পরিবারের সদস্যরা থানায় হামলা চালায়৷ থানা লক্ষ্য করে ইট থেকে শুরু করে পাথর ছোড়া হয়৷ থানায় ঢুকে পুলিশের উপর চড়াও হয় ধৃতের পরিবার৷ পুলিশকে ফেলে থানার মধ্যে পেটানো হয়৷ করা হয় মারধর৷ পাল্টা হামলা চালায় পুলিশও৷ পরিস্থিতি সামাল দিতে পরে বিশাল পুলিশবাহিনী  থানায় মোতায়েন করা হয়৷ পুলিশি হামলার অভিযোগ তুলে টালিগঞ্জ থানার পুলিশের বিরুদ্ধেই অভিযোগ দায়ের করেন যুবকের পরিবার৷ পুলিশও স্বতোঃপ্রণোদিত মামলা দায়ের করে৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here