আজ বিকেল: শীতকাল কখনও সোয়েটার হাতের কাছে না পেলে একটার উপরে আর একটা জামা অনেকেই গলিয়ে নিয়েছেন। বর্ষার দিনেও এমনটা যে ঘটেনি তা নয়। কিন্তু তাবলে বেড়াতে বেরিয়ে ভরা বিমানবন্দরে এমনটা কজন ঘটিয়েছেন বলুন তো। তবে শুনে হাসি পেলেও লোক সমক্ষে একে একে ১৫টি জামা গায়ে গলালেন এক ব্যক্তি। উপলক্ষ, অতিরিক্ত লাগেজের জন্য কিছুতেই ফাইন দেবেন না। তাই গায়ে চড়েই ১৫টি জামা প্যারিস থেকে এডিনবার্গ গেল। প্যারিসের নাইস বিমানবন্দরে এই অভিনব কাণ্ড যিনি ঘটিয়েছেন তাঁর নাম জন ইরভিন, গোটা পরিবার নিয়েই তিনি এডিনবার্গ যাচ্ছিলেন। ইজি জেট-এর ফ্লাইটে।

জানা গিয়েছে, বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষের তরফে জানানো হয় তাঁদের লাগেজ বেশি হয়ে গিয়েছে, তাই অতিরিক্ত আট কিলো লাগেজের জন্য গ্যাঁটের কড়ি গুনতে হবে জন ইরভিনকে। এরপরেই বেঁকে বসেন ওই ব্যক্তি। তিনি কিছুতেই ফাইন দেবেন না তাই সবার সামনেই ব্যাগ খালি করে ১৫টি জামা গায়ে পরে ফেলেন। ঘটনাস্থলেই ছিলেন বিমানবন্দরের কর্মীরা। এক বোর্ডারের এমন কাণ্ড দেখে প্রথমটায় তাঁরা হকচকিয়ে যান। তারপর হাসিতে ফেটে পড়েন। কেউ কেউ মোবাইলে বোর্ডারের কীর্তির ভিডিও করে রাখতে ভোলেননি। সেই ভিডিও বাইরাল হতেই হেসে খুন নেট দুনিয়া।

তবে ইরভিন একা নন, নাটালিয়া নামের এক মহিলাও এমনটা ঘটিয়েছেন। বেশ কিচুদিন আগে বছর তিরিশের নাটালিয়া বিমানে অতিরিক্ত ফাইন বাঁচাতে সাতখানা জামা এবং দু-খানা শর্টস গলিয়েছিলেন নিজের গায়ে। উদ্দেশ্য একটাই। ফাইন দেবেন না। নেটিজনরা বলছেন, নাটালিয়ার থেকে অনুপ্রেরণা পেয়েই বোধহয় মুগ্ধ হয়ে গিয়েছিলেন জন। সুযোগ খুঁজছিলেন এমন ট্রিক অ্যাপ্লাই করার। অবশেষে এলো সেই দিন। যোগ্য গুরুর সুযোগ্য শিষ্যের মতোই ট্রিক অ্যাপ্লাই করে দিলেন জন ইরভিন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here