কলকাতা: ‘২৩ মে-র পরে রাজ্যে দুষ্কৃতীদের শান্তিতে থাকতে দেব না।’ বুধবার, সাংবাদিক বৈঠকে স্পষ্ট বার্তা বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের। তিনি বলেন, হিন্দিভাষীদের কাঠগড়ায় দাঁড় করানো উচিত নয়। একই সঙ্গে অমিত শাহ সুরে সুর মিলিয়ে দিলীপ ঘোষ প্রশ্ন তোলেন, কলেজের ভিতরে ঢুকে মূর্তি ভাঙল কে? কারণ, বিজেপির কর্মী, সমর্থকরা বাইরে ছিলেন। একই সঙ্গে বিজেপির রাজ্য সভাপতির অভিযোগ, পরিকল্পনা করেই গেরুয়া রঙের পোশাক পরে হামলা চালিয়েছে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা।

বিজেপি নেতা রাহুল সিনহাও অভিযোগ করেন, বিদ্যাসাগর কলেজে পরিকল্পনা মাফিক হামলা চালিয়েছে তৃণমূল। বুধবার, বিজেপির রাজ্য দফতরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি প্রশ্ন তোলেন কেন কলেজের প্রাক্তন ছাত্ররা মঙ্গলবার সন্ধেয় কলেজে উপস্থিত ছিল? তিনি অভিযোগ করেন, ২০১৩ তৃণমূল ছাত্র পরিষদের নেতা অভিষেক মিশ্র ও তাঁর দুই সহযোগীর হেনস্থার জেরে এক ছাত্রী আত্মহত্যা করেন। সেই অভিষেক মঙ্গলবার সন্ধেয় বিদ্যাসাগর কলেজে কী করছিলেন, সেই বিষয়েও প্রশ্ন তোলেন কলকাতা উত্তরের বিজেপি প্রার্থী। একই সঙ্গে তিনি অভিযোগ করেন, হামলার সময়কার সিসিটিভি ফুটেজ দেখাতে পারছে না কলেজ কর্তৃপক্ষ। বিষয়টি নিযে তদন্তের দাবি জানিয়েছেন রাহুল সিনহা।

Loading...
Loading...

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here