বোলপুর: শতাব্দী রায়কে পাশে বসিয়ে তৃণমূলের মঞ্চে বসে সরকারি আইনজীবীকে কড়া নির্দেশ দিলেন দিলেন অনুব্রত মণ্ডল৷ রবিবার তৃণমূলের সভা মঞ্চে বসে মাইক হাতে সরকারি আইনজীবীকে অনুব্রতর নির্দেশ, স্থানীয় ব্লক তৃণমূল সভাপতি দীপক ঘোষ খুনের ঘটনায় গ্রেপ্তার খয়রাশোলের দাপুটে তৃণমূল নেতা উজ্জ্বল হক কাদেরিকে জামিন দিতে হবে৷ জামানের জন্য আইনজীবীকে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ারও নির্দেশ দেন অনুব্রত৷

বলেন, ‘‘উজ্জ্বল কাদেরির কেসটা দেখুন৷ ওর জামিন করাতে হবে৷ কী শুনলেন৷ উজ্জ্বলের জামিন হবে তো?’’ মঞ্চ থেকে অনুব্রত মণ্ডলের এহেন নির্দেশ শুনে বিড়ম্বনায় পড়েন সরকারি আইনজীবী৷ তবে, একজন সরকারি আইনজীবী হয়ে তিনি কেন তৃণমূলের সভায় হাজির হলেন? তা নিয়েও প্রশ্ন তুলছেন পর্যবেক্ষক মহলের একাংশ৷

গত ২৫ জানুয়ারি গ্রেপ্তার হন খয়রাশোলের দাপুটে তৃণমূল নেতা উজ্জ্বল হক কাদেরি। স্থানীয় ব্লক তৃণমূল সভাপতি দীপক ঘোষ খুনের ঘটনায় তাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। মাস আড়াই আগে বোলপুরে জেলা কমিটির সভায় আচমকা কাদেরিকে গ্রেপ্তারের কথা বলেছিলেন অনুব্রত। প্রকাশ্যে বলেছিলেন, ‘‘উজ্জ্বল বোম মারার নায়ক। ওকে এখনই গ্রেপ্তার করুক পুলিশ৷’ এই মন্তব্যের পর আজ, ‘বোম মারার নায়ক উজ্জ্বল’কে জামিন দেওয়ার জন্য সরকারি আইনজীবীকে নির্দেশ দেন অনুব্রত মণ্ডল৷

গত ২৩ অক্টোবর খয়রাশোলের ব্লক তৃণমূল সভাপতি দীপক ঘোষ খুন হন। নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহে কৈথি গ্রামে পুলিশের উপর হামলা হয়। সেই ঘটনায় উঠে আসে উজ্জ্বলের নাম। তারপরই অনুব্রতর কড়া মনোভাবের ইঙ্গিত পায় প্রশাসন। দিন গোনা শুরু হযে যায় উজ্জ্বলের। এরপরেই ২৫ জানুয়ারি রাতে কৈথি গ্রামের বাড়ি থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে কাঁকরতলা থানার পুলিশ।

Loading...
Loading...

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here