কলকাতা: গত বছর বড়দিন ও এবারের বর্ষবরণকে কেন্দ্র করে উৎসবের সময়ে ২০০ টাকা ছুঁয়েছিল মুরগির মাংসের দাম। তাতে দোসর হয়েছিল পোলট্রির ডিমও। ডিমের দাম খানিকটা বাগে এসেছে। মুরগির মাংসের চড়া দরও একটু কমেছিল মাঝে। কিন্তু ফের চড়েছে দাম। এখন বাজারভেদে পোলট্রির ডিমের দর কম-বেশি পাঁচ টাকা।

কিন্তু মাংসের কেজি ফের ১৮০ টাকা থেকে ১৯০ টাকায় পৌঁছেছে। আমজনতা বলছে, গোটা শীতকাল জুড়েই অতি চড়া দাম গিয়েছে আনাজপাতির। দরের দাপটে হাত দেওয়া যায় না মাছে। এমন অবস্থায় মাংসও যদি লাগাতারভাবে উঁচু দামে আটকে থাকে, তাহলে বাজারে গিয়ে বাঙালির মুখ ব্যাজার হওয়াটাই স্বাভাবিক। প্রতি বছরই শীত উৎসবের সময় চড়ে যায় মুরগির মাংসের দর। এবারও তার অন্যথা হয়নি। ১৯০ টাকা থেকে ২০০ টাকা কেজিতে ঘোরাঘুরি করেছে সেই দাম। মধ্যে তা নেমে এসেছিল ১৬০ টাকা থেকে ১৭০ টাকায়। কিন্তু ফের ফিরেছে পুরনো দামের ঝাঁঝে। তা নিয়ে মনকষ্টের শেষ নেই সাধারণ মানুষের। তাঁদের বক্তব্য, ভরা শীতে প্রতিবারই দাম খানিকটা কম থাকে আনাজপাতির। কিন্তু এবার অবস্থা বেশ শোচনীয়।

কারণ, এখন বাজারে ১৫ টাকার নীচে যেমন ফুলকপি নেই, শীতকাল জুড়ে দীর্ঘদিন ৩০ টাকা থেকে ৪০ টাকায় কিনতে হয়েছে বেগুন, শিম, টম্যাটো, মটরশুঁটি, মুলো থেকে শুরু করে বিট, গাজর বা পালং শাক। শীতের আনাজের দাম ডিসেম্বর-জানুয়ারিতে কেন এতটা বাড়ল, তার উত্তর অনেকের কাছেই মিলছে না। এই অবস্থায় যেখানে রসনা তৃপ্তির সঙ্গেই কিছুটা পকেট সাশ্রয় করতে পারত মুরগির মাংস, সেই সুযোগও গিয়েছে।

Loading...
Loading...

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here