super blood moon

ওয়াশিংটন: চলতি মাসেই ‘সুপার ব্লাড মুন’ দেখার সুযোগ পাবে গোটা বিশ্ব৷ জানুয়ারি মাসের ২০ অথবা ২১ তারিখে এই মহাজাগতিক ঘটনার সাক্ষী হওয়া যাবে৷ আমেরিকা, পশ্চিম ইউরোপ আর আফ্রিকা থেকে এই ঘটনা প্রত্যক্ষ করা যাবে৷ ওই দিন পূর্ণগ্রাস চন্দ্রগ্রহণের সময় ‘সুপার ব্লাড মুন’ দেখা যাবে৷ এর পরে আবার ২০২১ সালের ২৬ জুন দেখা যাবে পূর্ণগ্রাস চন্দ্রগ্রহণ৷ ২০১৮ সালের ২৭ জুলাই শেষ পূর্ণগ্রাস চন্দ্রগ্রহণ দেখা গিয়েছিল৷

কোথায় দেখা যাবে সুপার ব্লাড মুন? ন্যাশানাল জিওগ্রাফিক জানিয়েছে, ২১ জানুয়ারি ভারতীয় সময় সকাল ১০টা ১১মিনিটে পূর্ণগ্রাস চন্দ্রগ্রহণ শুরু হবে৷ ৬২ মিনিট ধরে চলবে গ্রহণ৷ এশিয়ার কোন দেশ থেকেই এই গ্রহণ দেখা যাবে না৷ এছাড়াও পূর্ব আফ্রিকা ও পূর্ব ইউরোপ থেকে এই গ্রহণের শুরু দেখা যাবে৷ পূর্ণগ্রাস গ্রহণ ৬২ মিনিট ধরে চললেও সম্পূর্ণ গ্রহণটি চলবে ৩ ঘণ্টা ৩০ মিনিট ধরে৷ চাঁদ ও সূর্যের সঙ্গে এক সরলরেখায় পৃথিবী চলে এলে চন্দ্রগ্রহণ হয়৷ তখন সূর্যের আলো পৃথিবীতে আটকে গিয়ে আর চাঁদে পৌঁছাতে পারে না৷ ফলে চন্দ্রগ্রহণ হয়৷

সুপার ব্লাড মুন কী? চন্দ্রগ্রহণের সময় চাঁদ থেকে একটি লাল আভা বের হবে৷ পৃথিবীপৃষ্ঠ থেকে প্রতিসারিত আলো চাঁদের অন্ধকার জায়গাতে গিয়ে পড়ার জন্য এই লাল আভা দেখা যাবে৷ লীল ও বেগুনি রঙের থেকে লাল আলোর তরঙ্গদৈর্ঘ্য বেশি ছড়িয়ে পড়ে বলেই চাঁদকে লাল দেখতে হবে৷ এই মহাজাগতিক ঘটনার নাম সুপার ব্লাড মুন৷

Loading...
Loading...

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here