কলকাতা: বিশ্বভারতীর রিপোর্টের ভিত্তিতে হাইকোর্ট নির্দেশ দিয়েছে, প্রাথমিকের প্রশ্নপত্রে ভুল থাকায় শুধু মামলাকারীদেরই খাতা খতিয়ে দেখে চাকরির নিশ্চিত করতে হবে৷ কিন্তু, আদালতের ওই রায় দেখে ইতিমধ্যেই কয়েক হাজার চাকরি-প্রার্থী নতুন করে নিজেদের উত্তরপত্র পুনর্মূল্যায়নের জন্য হাইকোর্টে আবেদন করেছেন৷ দুর্গাপুজোর ছুটির পরে বিচারপতি সমাপ্তি চট্টোপাধ্যায়ের এজলাসে নতুন করে দায়ের মামলাগুলির শুনানি হওয়ার কথা৷ আর এতেই সিঁদুরে মেঘ দেখতে শুরু করেছেন প্রাথমিক শিক্ষকদের একাংশ৷ মামলা গ্রহণ হলে পুরো নিয়োগ প্রক্রিয়ায় ভেস্তে যাওয়ার সম্ভবা রয়েছে৷



২০১৪-র টেট পরীক্ষায় বেশ কয়েকটি প্রশ্নে ভুল রয়েছে বলে এ বছর ২৭ জুলাই পর্যন্ত যে পরীক্ষার্থীরা মামলা করেছিলেন, হাইকোর্ট তাঁদের ক্ষেত্রেই ৩ অক্টোবরের রায় কার্যকর করার নির্দেশ দিয়েছিল৷ এখন যাঁরা মামলা করছেন, সরকারের দাবি অনুযায়ী, তাঁরা এত দিন ‘নীরব দর্শক’ হয়ে ছিলেন কি না, সেই নিয়ে সওয়াল-পাল্টা সওয়াল শুরু হবে দু’পক্ষের। ফলে প্রায় ২২ লক্ষ চাকরিপ্রার্থীর পরীক্ষা নেওয়া এবং প্রাথমিকে ৪২ হাজার শিক্ষক নিয়োগের পরে নতুন করে আইনি জট নিয়ে জল্পনা তৈরি হয়েছে শিক্ষামহলে৷

এই সংক্রান্ত আরও খবর জানতে ফেসবুক পেজ লাইক করুন facebook.com/Aajbikal ও aajbikel.com-এ ক্লিক করুন

 

কেন্দ্রীয় সংস্থার নামে ভুয়ো নিয়োগপত্র, সর্বস্ব খোয়ালেন যুবক

প্রাথমিক শিক্ষকদের বেতন বৈষম্য রুখতে ‘কাঁটা দিয়ে কাঁটা তোলা’র কৌশল

স্কুলে নিয়োগে স্থগিতাদেশ জারি

প্রধান শিক্ষক নিয়োগে ব্যুমেরাং কমিশনের

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ মামলার গুরুত্বপূর্ণ আপডেট

১৩ দিনের ছুটির তালিকা আরও ৪দিন বাড়ালেন মুখ্যমন্ত্রী

রাজ্য বিমা নিগমে বিভিন্ন পদে নিয়োগের পরীক্ষার সূচি প্রকাশ

 

Loading...
Loading...

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here