কলকাতা: ২০১৪ থেকে ২০১৭ সাল, এই তিন বছরে একাদশ শ্রেণীর বার্ষিক পরীক্ষার যাবতীয় উত্তরপত্র তুলে দিতে হবে উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের হাতে। সংসদের এই নির্দেশে বেশ বিপাকে পড়েছে অনেক স্কুল। তিন বছরের বিপুল সংখ্যক খাতা অনেক স্কুলই সংরক্ষণ করে রাখতে পারেনি। কিছু নষ্ট হয়েছে। কিছু খোয়া গিয়েছে বা পোকায় কেটেছে। ২০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে খাতাগুলি জমা দিতে হবে। এর জন্য বিদ্যাসাগর ভবন ছাড়াও ১৪টি স্কুলের নাম দেওয়া হয়েছে, যেখানে খাতাগুলি জমা করা যাবে। হাওড়ার একটি স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা শুভ্রা চক্রবর্তী বলেন, সংসদ আমাদের কাগজ দেয়। তাই উত্তরপত্র তারা চাইতেই পারে। কিন্তু তিন বছরের খাতা একসঙ্গে জমা দেওয়া অনেক স্কুলের পক্ষেই সম্ভব নয়। এরকম কখনও হয়েছে বলে মনে পড়ে না। সবার সেই পরিকাঠামোই নেই। আমাদের সেই সমস্যা নেই। কিন্তু আমাদের স্কুলের খাতা যে স্কুলে জমা দিতে বলা হয়েছে, তারা এখন সেগুলি নিতে চাইছে না। তারা বলছে, সংসদের কোনও প্রতিনিধি খাতা দিতে আসেননি। আমরা এত খাতা নিয়ে রাখব কোথায়? দূর-দূরান্ত থেকে অনেক স্কুল গাড়ি করে খাতা নিয়ে এসে ফিরে গিয়েছে। এই সমন্বয়ের অভাবে অনেক অর্থ নষ্ট হচ্ছে। সংসদের এক কর্তার দাবি, প্রতি তিন বছর অন্তরই এই খাতা চাওয়া হয়। যারা যত সংখ্যক খাতা দিতে পারবে, সেটাই দেবে।

Loading...

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here