আজ বিকেল: দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর প্রকাশিত হয়েছে স্কুল সার্ভিস কমিশনের নবম এবং দশম শ্রেণির শিক্ষক নিয়োগের মেধা তালিকা৷ চলছে, নিয়োগ প্রক্রিয়া৷ কিন্তু, নিয়োগ প্রক্রিয়ায় শুরু হতেই প্রকাশ্যে এসেছে বেশ কিছু ‘অসঙ্গতি’৷ দীর্ঘ ছ’বছর পর শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়ায় স্বচ্ছতার দাবি তুলে ফের আন্দোলনে ঝাঁপাতে চলেছে SSC যুব-ছাত্র অধিকার মঞ্চ৷ অভিযোগ, বিধি এড়িয়ে কমিশন অনুপস্থিত প্রার্থীদের ফের কাউন্সেলিংয়ে সুযোগ দিতে চলেছে স্কুল সার্ভিস কমিশন৷ কিন্তু, এতেই ঘোর আপত্তি অপেক্ষায় থাকা চাকরিপ্রার্থীদের একটি বড় অংশ৷ অনুপস্থিত প্রার্থীদের কেন গণসুযোগ দেওয়া হবে? মূলত, এই অভিযোগ তুলে আগামী সপ্তাহে আচার্য সদনে ঝড় তুলতে চলেছেন চাকরি প্রার্থীদের একাংশ৷

শিক্ষক নিয়োগে কবে ডাকা হবে ওয়েটিং লিস্টে থাকা প্রার্থীদের? পড়ুন বিস্তারিত

চাকরিপ্রার্থীদের আশঙ্কা, উচ্চ মাধ্যমিকে শিক্ষক নিয়োগের মতো নবম এবং দশম শ্রেণিতেও অনুপস্থিত প্রার্থীদের গণহারে ডাকা হতে পারে৷ সূত্রের খবর, সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে দু’এক সপ্তাহের মধ্যে এই সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তিও জারি হতে পারে৷ কিন্তু, সুযোগ হারানো প্রার্থীদের দ্বিতীয়বারের জন্য সুযোগ দিতে নারাজ ওয়েটিং লিস্টে থাকা চাকরিপ্রার্থীরা৷ মূলত, রি-কাউন্সেলিংয়ের বিষয়ে কমিশনের মনোভাব জানতে আগামী সপ্তাহে আচার্যয় সদনে ডেপুটেশন কর্মসূচি নিয়েছে SSC যুব-ছাত্র অধিকার মঞ্চ৷ রিকাউন্সেলিং রোখা-সহ বাংলা বিষয়ে কাউন্সেলিংয়ের প্রক্রিয়া শুরু করা ও পিডিএফ আকারের মেধাতালিকা প্রকাশ এবং হোম সায়েন্সের মতো কম গুরুত্ব বিষয়ে শিক্ষক নিয়োগের দাবিতে ডেপুটেশ কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে বলে জানান গিয়েছে৷

চাকরি সংক্রান্ত সমস্ত খবর জানতে ক্লিক করুন এখানে





SSC যুব-ছাত্র অধিকার মঞ্চের অন্যতম সদস্য মেহেবুব মণ্ডল আজ বিকেল ডট কমকে বলেন, ‘‘আমরা কমিশনের কাছে জানতে চাইব, কেন তারা গণহারে অনুপস্থিত প্রার্থীদের দ্বিতীয়বারের জন্য কাউন্সেলিংয়ের সুযোগ করে দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছে৷ কারণ, কমিশনের আট নম্বর কলামে বলা আছে, আগাম না জানানো অনুপস্থিত প্রার্থীদের কাউন্সেলিংয়ের দ্বিতীয় কোনও সুযোগ দেওয়া হবে না৷ সাত নম্বর কলমে বলা হয়েছে, উপযুক্ত কারণে যদি কোনও প্রার্থী কাউন্সেলিংয়ের উপস্থিত থাকতে পারবেন না বলে আগাম জানিয়েদেন, সেক্ষেত্রে ছাড় দেওয়া আছে৷ কিন্তু, আমরা খুব স্পষ্ট জানতে চাই, কেন তাঁদের জন্য দ্বিতীয় সুযোগ দেওয়া হচ্ছে? আদৌ কোনও প্রার্থী তাঁদের অনুপস্থিতির কোনও কমিশনকে জানিয়েছিল কি না৷’’

শিক্ষা সংক্রান্ত সমস্ত খবর জানতে ক্লিক করুন এখানে

ডেপুটেশ দেওয়ার এক সপ্তাহের মধ্যে কোনও উত্তর পাওয়া না গেলেও পরবর্তী পদক্ষেপের কথাও আজ বিকেল ডট কমকে জানাতে ভোলেননি মঞ্চের সদ্যরা৷ ‘আইন’ না মেনে নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু হলে মঞ্চের তরফে আইনি লড়াইয়ে যাওয়া ছাড়া আর কোনও বিকল্প থাকবে না বলেও হুঁশিয়ারি দেওয়া হচ্ছে৷ তবে, রিকাউন্সেলিংকে কেন্দ্র করে আইনি লড়াই শুরু হলে ফের ভেস্তে যাবে না তো শিক্ষক নিয়োগের গোটা প্রক্রিয়া? নিয়োগ খাতায় লাল সুতোয় গেরো পড়বে না তো? আশা-আশঙ্কার দোলাচলে হবু শিক্ষকদের একাংশের৷

এই সংক্রান্ত আরও খবর জানতে ফেসবুক পেজ লাইক করুন facebook.com/Aajbikal ও aajbikel.com-এ ক্লিক করুন

Loading...

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here