কলকাতা: পুজোর আগে চাকরিপ্রার্থীদের জন্য সুখবর। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আগামী শুক্রবার কৃষি প্রযুক্তি সহায়ক (কেপিএস) পদে নিয়োগের চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করবে পাবলিক সার্ভিস কমিশন (পিএসসি)। সূত্রের দাবি, ৮১৮টি শূ্ন্যপদের জন্য প্রায় সাড়ে ছ’লক্ষ আবেদন জমা পড়েছিল। যদিও সম্ভাব্য চাকরি প্রার্থী হিসেবে নবান্নে ৮০৬ জনের তালিকা পাঠাতে চলেছে পিএসসি। জানা গিয়েছে, এক্স-সার্ভিসম্যান, তফসিলী উপজাতির মতো সংরক্ষিত পদগুলিতে যোগ্য প্রার্থী না মেলায় সব শূন্যপদ পূরণ করা যায়নি। উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের এপ্রিল মাসে রাজ্য স্টাফ সিলেকশন কমিশন (এসএসসি) কেপিএস পদে প্রথম পর্বের লিখিত পরীক্ষার আয়োজন করে। তাতে সফল প্রার্থীদের নিয়ে দ্বিতীয় পর্বের লিখিত পরীক্ষা আয়োজিত হয় ২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে। যদিও ওই বছরের এপ্রিল মাসে এসএসসি’র চেয়ারম্যানের মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ায় খাতা দেখার সিদ্ধান্ত ঝুলে থাকে। তারই মাঝে রাজ্য সরকার এই নিয়োগকারী সংস্থাকে তুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। তারপর সেপ্টেম্বর পর্যন্ত পরীক্ষার্থীদের ভবিষ্যৎ কার্যত সরকারি সিদ্ধান্তের উপর নির্ভর করছিল। পরবর্তী সময়ে সরকার সিদ্ধান্ত নেয়, এই অসমাপ্ত পরীক্ষা প্রক্রিয়া শেষ করবে পিএসসি। তারপর দ্বিতীয় পর্যায়ের লিখিত পরীক্ষার খাতা দেখা শুরু হয়। কয়েকমাস পর লিখিত পরীক্ষায় সফল প্রার্থীদের তালিকা প্রকাশ করে কমিশন। চলতি বছরে সংশ্লিষ্ট প্রার্থীদের ইন্টারভিউ হয়। সেই প্রক্রিয়া শেষ হওয়ার চূড়ান্ত মেধা তালিকা তৈরি করে কমিশন। আগামী শুক্রবার সেই তালিকা প্রকাশ করতে চলেছে পিএসসি। সূত্রের দাবি, ওই দিন কমিশনের সরকারি ওয়েবসাইটে এই তালিকা প্রকাশ করবে কমিশন। সফল প্রার্থীদের তালিকা পাঠিয়ে দেওয়া হবে নবান্নে। পরবর্তীকালে কৃষি দপ্তর প্রার্থীদের হাতে নিয়োগপত্র তুলে দেবে। কেপিএস পদটি মূলত রাজ্য সরকারি দপ্তরের গ্রুপ-সি পর্যায়ের সমতুল। যাঁদের কাজ মূলত গ্রামীণ এলাকায় কৃষি কাজে চাষিদের উপযুক্ত পরামর্শ দেওয়া। মূলত ডিরেক্টরেট অফিসগুলিতে সংশ্লিষ্টদের পোস্টিং হওয়ার সম্ভাবনা প্রবল। তবে কয়েকজনকে হেড কোয়ার্টারে পোস্টিং দেওয়া হতে পারে।

Loading...

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here